হরপ্পা / সিন্ধু সভ্যতার সামাজিক জীবন কেমন ছিল?

শ্রেণিবিভক্ত সমাজ: শ্রেণিবিভক্ত সমাজের অস্তিত্ব হরপ্পা সভ্যতার অন্যতম বৈশিষ্ট। শহরের ঘরবাড়ি ও অন্যান্য উপকরণ দেখে মনে হয় যে সমাজে শাসক সম্প্রদায়, ধনী ও ব্যবসায়ী এবং দরিদ্র শ্রমিক ও কারিগরেরা বাস করত। দুর্গ অঞ্চলেই ছিল শাসকদের বাসগৃহ। শহরের দ্বিতল-ত্রিতল গৃহগুলিতে বাস করত ধনী ও মধ্যবিত্ত বণিক সম্প্রদায় এবং খুপরি জাতীয় ঘরগুলি ছিল শ্রমজীবী দরিদ্রদের বাসস্থান।

পণ্ডিতরা অনুমান করেন যে, এই শহরগুলিতে ক্রীতদাসরাও ছিল। তারা দীনহীন কুটিরে বাস করত এবং ফসল মাড়াই, ভারী বােঝা বহন, শহরের জঞ্জাল পরিষ্কার প্রভৃতি কাজ করত। মহেঞ্জোদারাে ও হরপ্পা উভয় শহরেরই উত্তর-পূর্ব কোণ, দুপ্রকার ও শস্যাগারের কাছাকাছি স্থানসমূহে খুপরি-জাতীয় ঘরগুলির অস্তিত্ব শহরে ক্রীতদাস ও দরিদ্র শ্রমজীবীদের উপস্থিতি প্রমাণ করে। কালিবঙ্গান ও লােথালে এ ধরনের কোনও খুপরি মেলেনি বলে পণ্ডিতেরা মনে করেন যে, এই শহর দুটির শাসকরা হরপ্পা-মহেঞ্জোদারাের শাসকবর্গ অপেক্ষা উদার ছিলেন। অধ্যাপক ব্যাসাম মনে করেন যে, হরপ্পা সভ্যতায় মধ্যবিত্ত মানুষের সংখ্যাধিক্য ছিল।