সান ইয়াৎ সেন প্রস্তাবিত তিনটি নীতি কি ছিল?

তুং-মেং-হুই তৈরি করার অল্প কিছুদিন আগে সান ইয়াৎ সেন তিনটি “জনগণের নীতি” (সান মিন ঝুই) ঘােষণা করেছিলেন। তুং-মেং-হুই সানের এই তিনটি নীতির প্রতি পূর্ণ সমর্থন জানায়। সান ইয়াৎ সেন প্রস্তাবিত তিনটি নীতি ছিল— (১) জাতীয়তাবাদ, (২) গণতন্ত্র এবং (৩) সমাজতন্ত্র বা জনসাধারণের জীবিকা।

জাতীয়তাবাদ বলতে তিনি মূলত মাঞ্চু শাসনের বিরােধিতার উপর জোর দিয়েছিলেন। বিখ্যাত চীনা ঐতিহাসিক জিয়ান বোজান বলেছেন, সাম্রাজ্যবাদের বিরুদ্ধে কোন সুস্পষ্ট ধারণা না থাকার ফলে তিনি চিং রাজবংশের বিরােধিতার উপর অধিক গুরুত্ব আরােপ করেছিলেন।

তাঁর দ্বিতীয় নীতি গণতন্ত্র একটি প্রজাতান্ত্রিক সংবিধান রচনা করে সমস্ত নাগরিককে সমান অধিকার দেবার কথা বলেছিল। তাছাড়া, সান গণতন্ত্র বলতে শাসন বিভাগ, আইনসভা এবং বিচার বিভাগের পৃথকীকরণের মাধ্যমে ক্ষমতা স্বতন্ত্রীকরণের ওপরও গুরুত্ব আরােপ করেছিলেন।

তার তৃতীয় নীতি সমাজতন্ত্র বা জনগণের জীবিকার বিষয়টি প্রচার করার ক্ষেত্রে তিনি হেনরী জর্জের প্রচারিত তত্ত্বের দ্বারা প্রভাবিত হয়েছিলেন। সমাজতন্ত্র সম্পর্কে তার দৃষ্টিভঙ্গি ছিল পেটিবুর্জোয়া কল্পনাপ্রবণ সমাজতন্ত্রবাদী (Utopian Socialism) ধারণার প্রতিফলন। সান মনে প্রাণে বিশ্বাস করতেন যে, যদি জমির মালিকানার ক্ষেত্রে সাম্য প্রতিষ্ঠিত করা যায় তবে একদিকে চীনের কৃষকেরা সামন্ততান্ত্রিক শােষণ থেকে নিষ্কৃতি পাবে। এবং অন্যদিকে চীনে পশ্চিমী পুঁজিবাদের উত্থান রােধ করা সম্ভব হবে। রুশ বিপ্লবের নেতা লেনিন সেই সময় লিখিত একটি প্রবন্ধে বলেছিলেন, সান -এর “জনগণের জীবিকা” বা “সমাজতন্ত্র” সম্পর্কিত ধারণার সাথে রাশিয়ার নারদনিকতন্ত্রের সাদৃশ্য আছে। নারদনিকদের মতাে তিনিও বিশ্বাস করতেন যে, আমূল ভূমিসংস্কারের মাধ্যমেই পুঁজিবাদের উত্থান ঠেকানাে সম্ভব।